সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ০৯:৪৫ অপরাহ্ন
Logo

সমিতিপাড়ার ফুটবলার চায়না ইয়াবাসহ আটক: সহযোগি রুজিনা লাপাত্তা

নিজস্ব প্রতিবেদক / ১৯ ভিউ টাইম
আপডেট : বুধবার, ৫ জুন, ২০২৪

নিজস্ব প্রতিবেদক 

 

শহরের পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের সমিতিপাড়া থেকে এক মাদক কারবারীকে আটক করেছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তর। এ সময় তার কাছ থেকে ১ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

 

গতকাল মঙ্গলবার (৪ জুন) বেলা ১২টার দিকে মসজিদ গেইট এলাকার মহেশখালীর আবদুল কাদেরের ভাড়া বাসার রুজিনা নামক এক মহিলার ঘর থেকে ইয়াবা উদ্ধারসহ তাকে আটক করা হয়।

 

সূত্রে জানা যায়, শহরের পৌর ১নং ওয়ার্ডের সমিতিপাড়ায় দীর্ঘদিন ধরে ফুটবল খেলার আড়ালে ইয়াবা পাচার করে আসছিল চায়না নামের এক যুবক। সে সমিতিপাড়া এলাকার ৯নং গলির জয়নাল আবদীনের ছেলে বলে জানা গেছে। তবে রহস্যজনক কারণে ওই ঘরের ভাড়াটিয়া মালিক রুজিনাকে ছেড়ে দেয় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তরের অভিযানিক দল। এর আগেও আটক চায়না ও তার পিতা জয়নাল আবদীন ১০ হাজার ইয়াবাসহ আটক হয়ে কিছুদিন আগে কারাগার থেকে জামিনে বের হন। বর্তমানে চায়নার জেড়াত ভাই ইমরান প্রকাশ ইলানের স্ত্রী নিজ দোকান থেকে ইয়াবাসহ আটক হয়ে কারাগারে রয়েছে। 

 

স্থানীয় এলাকাবাসী জানান, রুজিনার মা ধইলানী এলাকার চিহ্নিত ইয়াবা সম্রাজ্ঞী হিসাবে পরিচিত। তার খালা আরেফা প্রকাশ মোর্শেদের বউ লাড়পাড়ায় বসবাস করেন। আরেফা দেশের বিভিন্ন এলাকায় ইয়াবা সাপ্লাইয়ার হিসাবে পরিচিতি লাভ করেছে। আরেফা ইয়াবা সংগ্রহ করে বোন ধইল্যানীর কাছে এনে তার (ধইল্যানীর) মেয়ে রুজিনার কাছে মজুদ রেখে চায়নার মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন জয়গায় পাচার করে। ইয়াবা সম্রাজ্ঞী আরেফা ইয়াবা নিয়ে আটকের পর জেল কাটলেও ধইল্যানী মোটা টাকার বিনিময়ে বারবার ছাড়া পেয়ে যাওয়ার অভিযোগ রয়েছে।

এদিকে এলাকাবাসী জানান, চায়না একজন ফুটবলার। তার ফুটবল খেলোর আড়ালে এসব মাদক সে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে পাচার করে। এ ছাড়াও তদন্ত করলে এলাকায় আরও অনেক ইয়াবা, মদ ও গাজা পাচারকারীর সন্ধান পাওয়া যাবে বলে এলাকাসী অভিযোগ করেন।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তরের উক্ত অভিযানিক দলের অফিসার মনির ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন- আটক চায়নার বিরুদ্ধ আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

 


আরো নিউজ বিভন্ন বিভাগের

আমাদের ফেইজবুক লাইক দিন

বাংলাদেশের মানচিত্র

Theme Customize By Monsur Alam